ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম | [২০২২]

বর্তমানে প্রযুক্তি আমাদের জীবনের প্রতিটি কাজ সহজ করে দিচ্ছে। যত দিন যাচ্ছে ততই প্রযুক্তির বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রত্যেকটা মানুষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনেক আনন্দ পায়। প্রযুক্তি ব্যবহার করে আপনি খুব সহজে জিডি করতে পারবেন। ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিন।

আজ থেকে ১০ বছর আগে তেমন কোনো প্রযুক্তি ছিলো না। মানুষের জীবন যাত্রার মান খুব কষ্ট কর ছিলো। বর্তমানে প্রযুক্তি মানুষের জীবন যাত্রার মান খুব সহজ করে দিয়েছে। মানুষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে, যে কোনো কাজ খুব তারাতাড়ি করতে পারে। এতে কোনো কষ্ট হয় না, এমনকি কোনো ঝামেলা ও হয় না।

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

ঘরে বসে অনলাইনে জিডি কপরার নিয়ম

আপনার কোনো কিছু হারিয়ে গেলে বা ছিনতাই হলে। আপনি খুব সহজে ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করতে পারবেন। কেউ আপনাকে যে কোনো ঝামেলা নিয়ে মৃত্যুর হুমকি দিলে, বা হুমকির সম্মুখীন হলে। আপনি নিজে ঘরে বসে জিডি করতে পারবেন।

নিরাপত্তার অভাবে, এমনকি কেউ আপনাকে ঘরে থেকে বের হলে মেরে ফেলবে। এমন আশংকা থাকলে দেশের আইন অনুযায়ী আপনি ঘরে বসে জিডি করতে পারেন। আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আপনি চাইলে জিডি করতে পারেন।

ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম কানুন

পুলিশিং এর আওতায় নাগরিক সেবাকে আরো সহজ করতে। ঘরে বসে অনলাইনে জিডি করার নিয়ম চালু করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ঢাকা মেট্রো পলিটনের আওতা ভুক্ত, সব থানার বাসিন্দারা এই সুবিধা পাবেন।

বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশনের অ্যাক্সেস টু ইনফরমেশন প্রকল্পের সহতায়। ঢাকা মেট্রো পলিটন পুলিশের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। অনলাইনে জিডি করার সুযোগ চালু করেছেন বাংলাদেশ পুলিশ।

কি কি হারালে জিডি করতে পারবেন

দেশের আইন অনুযায়ী আপনি চাইলে। খুব সহজে অনলাইনে জিডি করতে পারবেন।

১. সার্টিফিকেট হারিয়ে গেলে

২. মোবাইলে হারিয়ে গেলে, এবং চুরি বা চিনতাই হলে।

৩. গুরুত্বপূর্ণ দলিল হারিয়ে গেলে।

৪. আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র হারিয়ে গেলে।

৫. ব্যাংকের চেক বই হারিয়ে গেলে।

৬. পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে বা চুরি হলে।

৭. আপনার আত্মীয় স্বজন কেউ হারিয়ে গেলে। এমনকি আপনার আত্মীয় স্বজনদের মধ্যে কেউ ইচ্ছে কৃত পালিয়ে গেলে। এবং আপনার পরিবারের কেউ নির্যাতন হলে।

৮. আপনার ঘর থেকে টাকা পয়সা, স্বর্ণ অলংকার ছিনতাই হলে।

৯. কেউ আপনাকে মেরে ফেলার হুকুম দিলে।

১০. এমন কি আপনি কারো ভয়ে ঘর থেকে বের হতে পারছেন না। তার নামে জিডি করতে পারবেন।

এই রকম আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় থাকলে, আপনি জিডি করতে পারবেন। আইনগত সহযোগিতার জন্য জিডি অত্যন্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

আরো পড়ুনঃ
থানায় জিডি করার নিয়ম
জিডি করার উপকারিতা

অনলাইনে জিডি করার জন্য কি কি প্রয়োজন।

আপনি খুব সহজে অনলাইনের মাধ্যমে, মাত্র তিনটি ধাপে জিডি করতে পারবেন। এই জন্য আপনার প্রয়োজন হবে মাত্র তিনটি জিনিস। তাহলে নিচে পড়ে জেনে নিন কোন তিনটি জিনস লাগবে।

১. জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর।
২. জন্ম তারিখ
৩. মোবাইল নাম্বার

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

তাহলে আর দেরি না করে জেনি নিন। অনলাইনে জিডি করার তিনটি ধাপ।

অনলাইনে জিডি করার প্রথম ধাপঃ
প্রথমে আপনি gd.police.gov.bd এই ওয়েবসাইটে ঢুকবেন। তারপর আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর, জন্ম তারিখ এবং মোবাইল নাম্বার দিন। তারপর সাবমিট করুন।

এরপর পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য, আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে একটি একটি এসএমএস যাবে। ঐ এসএমএস এর মধ্যে আপনাকে একটি কোড দেওয়া হবে। এ কোড টি পাকা ঘরে বসিয়ে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

আপনাকে এসএমএস দেওয়া কোড টি। আপনি চাইলে পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন। এমনকি আপনি দেওয়া মোবাইল নাম্বারটি, ইউজার নাম হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন। এই দুইটি জিনিস মনে রাখলে উপকারে আসবে।

যা আপনার পরবর্তি জিডির আফডেট জানার জন্য। এমনকি জিডির সাটিফিকেট ডাউনলোড করতে, লগইন করার জন্য লাগতে পারে। চিন্তার কারন নাই, আপনি চাইলে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে পারবেন। পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে ও রিসেট করে পাসওয়ার্ড নতুন করে দিতে পারবেন।

অনলাইনে থানায় জিডি করার নিয়ম দ্বিতীয় ধাপঃ

আপনি জিডি কার জন্য করতেছেন, কি উদ্দেশ্য করতেছেন। এটা নিয়ে একটি ফরম পূরণ করতে হবে। জিডির ধরন হারোনো বা নিখোঁজ, না কি অন্য কিছু নিয়ে সেই বিষয় ফরমে দিতে হবে।

আপনার জিডি কি অনুযায়ী করতেছেন, সেই অনুযায়ী ঘটনার সময় দিতে হবে। এমন কি নির্দিষ্ট তারিখ দিতে হবে।
তারপর যে থানায় জিডি করবেন সেই থানার নাম দিতে হবে।

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

অনলাইনে জিডি করার তৃতীয় ধাপঃ
আপনার পূর্বের সাবমিট কৃত তথ্যদি। আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের ডাটাবেজ থেকে প্রাপ্ত ছবি, এবং অনন্য তথ্য সহ জিডির আবেদনের সাথে প্রদর্শিত হবে। আপনার বর্তমান ঠিকানা, ঘঠনার স্থান সমূহের নাম বিস্তারিত লিখতে হবে।

এরপর আপনার সাইন এবং ইমেল এডরেস লিখে সাবমিট করতে হবে। সাবমিট হলে আপনার জিডি আবেদনের কাজ সম্পূর্ণ হবে।

আপনার জিডি সাটিফিকেট থানা থেকে ইস্যু করার পর। আপনার দেওয়া নাম্বারে এসএমএস এর মাধ্যম জানিয়ে দেওয়া হবে। তার পর আপনার প্রোফাইল লগইন করে, জিডির সাটিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন।

লগইন করার নমুনা ছবি

আপনি লগইন করতে হলে gd.police.gov.bd এই ওয়েবসাইটে ডুকে, লগইন অপশনে click করতে হবে। অথবা এই ওয়েবসাইট সরাসরি ডুকে জিডি করতে পারবেন।

সর্বশেষে কথা

বর্তমানে অনলাইনে জিডি সার্ভিসটি পরীক্ষা মূলকভাবে কাজ করে যাচ্ছে, শুধু কয়েকটি জাগায়। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সূত্রাপুর, কলাবাগান ও ক্যান্টনমেন্টে আওতায় যারা আছে তাদের জন্য।

এবং ময়মনসিংহ ও ভালুকা থানার এলাকায় চালু আছে। এর বাহিরে অন্য যে কোনো থানায় হারানো গেলে। এমনকি প্রাপ্তি সংক্রান্ত জিডি সরাসরি থানায় গিয়ে করতে হবে।

Leave a Comment